1. admin@gomtirkagoj.com : admin :
রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১০:১৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বাকি টাকা চাওয়ায় কুমিল্লা কাপ্তান বাজারের জামিল সমিতির সভাপতি কে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপির সভাপতি ও চারবারের এমপি মঞ্জু মুন্সি ছোট ভাই ডাঃ মনিরুজ্জামান এর ইন্তেকাল কুমিল্লা-৭,আসনের জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী লুতফুল রেজা খোকন তাঁর মনোনয়নপত্র প্রত্যহার করে নিতে আবেদন করেছেন কুমিল্লা-৭,সংসদীয় আসন থেকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ডাঃ প্রাণ গোপাল দত্ত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার সর্বস্তরের জনগণ শুভেচ্ছা জানান কুমিল্লায় শিক্ষার্থীদের মাঝে গাছের চারা বিতরণ চান্দিনায় পুলিশের অভিযানে গাঁজাসহ ৪ জন আটক কুমিল্লা-৭,আসনের নৌকার মাঝি ডা.প্রাণ গোপাল দত্ত কুমিল্লায় বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ এক নারী মাদক ব্যবসায়ী আটক চলন্ত ট্রেনে মোবাইল ফোন ছিনতাইয়ের চেষ্টাঃ ঘটনা মারাত্ম বেড়েছে কুমিল্লায় তিনটি কারখানায় ৪ লক্ষ ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও একটি কারখানা সিলগালা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত

চলন্ত ট্রেনে মোবাইল ফোন ছিনতাইয়ের চেষ্টাঃ ঘটনা মারাত্ম বেড়েছে

গোমতী কাগজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : বুধবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৪৬ বার পঠিত

সংবাদদাতাঃ

চলন্ত ট্রেনে পাথর ছুঁড়ে মারার ঘটনা নতুন কিছু না। তবে সাম্প্রতিক সময় এই ঘটনা মারাত্ম বেড়েছে। কেন পাথর ছুঁড়ে মারে, কারা মারে এই নিয়ে রয়েছে এক বিশাল রহস্য। চলন্ত ট্রেনে পাথর ছুঁড়ে মারে কেন, এই প্রশ্ন লাখ লাখ মানুষের। তবে সোশ্যাল মিডিয়ার ভিডিও শেয়ারিং সাইটে এমন অসংখ্য ভিডিও রয়েছে যেখান দেখা যাচ্ছে ট্রেন পথে চলন্ত ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করছেন কিছু ব্যক্তি।

ট্রেন থেকে কেউ শখের বশে ছবি তোলার চেষ্টা করতেই হাতে কোনো উপায়ে আঘাত করে ওঁত পেতে থাকা ব্যক্তি। আকস্মিক আঘাত পেয়ে বাধ্য হয়ে ফোনটা ফেলে দেন যাত্রী। কোনো কোনো সময় কোনো ধরনের বস্তু দিয়ে আঘাত করতেও দেখা গেছে। চলন্ত ট্রেন বা বাসে ফোন ছিনতাইয়ের ঘটনা নতুন কিছু। তবে এসব যারা করছে তারা অধিকাংশ সময়ে ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে যাচ্ছে। ফলে অপরাধ কমছে না।
এমন ঘটনায় দরজায় কাছে দাঁড়িয়ে থাকা যাত্রী পড়ে মারা গেছেন, এমন অনেক তথ্যও রয়েছে।আল মামুন নামের একজন সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারী নিজের ফেসবুকে একটি ছবি শেয়ার করেছেন। ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে দুই ব্যক্তি ট্রেনের খুব নিকটে ছিলেন। পরে দ্রুত সরে যাচ্ছেন। ছবির ব্যক্তি দুজনের শারীরিক ভাষা খুবই সন্দেহজনক। ছবিটি পোস্ট করে আল মামুন লিখেছেন, ‘কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেসে ছিলাম,ভৈরব পার হচ্ছিলো আর গ্রামের ভিতরে ডুকছিলাম,ভাবলাম ছবি তুলি একটা,দূর থেকেই সন্দেহ হচ্ছিলো ফোন টান দিবে, যা ভাবা সেই কাজ। ফোন নিতে পারেনি আমি তাদের ছবি ঠিকি আগেই নিয়ে নিয়েছিলাম,ভৈরবের আশেপাশে ই থাকে এই ২ চোর, ধরিয়ে দিন চিনলে!
আল মামুনের কথা অনুযায়ী এই দুজন দুর্বৃত্ত। যারা ভৈরবের ট্রেন লাইনের আশেপাশেই থাকেন, যারা নিয়মিত চলন্ত ট্রেন থেকে ফোন টান দেয়। এরা দুজনও আল মামুনের ফোন টান দেওয়ার চেষ্টা করেছিল কিন্তু সম্ভব হয়নি। উল্টো দুই ‘দুর্বৃত্ত’ ব্যর্থ হয়ে ফিরে যাওয়ার সময় মামুন তাদের ছবি তুলে ফেলতে সক্ষম হন।
একজন মন্তব্য করেছেন, ‘এই জায়গাগুলোর মধ্যে বহুৎ ছিনতাইকারী আছে যে উৎপেতে থাকা গাড়ি ছাড়ার পর কখনকার জিনিসপত্র টান দিয়ে দৌঁড় দিবে, দৌঁড় ও দিতে হয়না কারণ ট্রেন তো আস্তে আস্তে চলে যায় ওরা জাস্ট এক পাশে দাঁড়িয়ে থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর